ঢাকা-সিরাজগঞ্জ-পাবনা রুটে চারদিন বাস চলাচল বন্ধ

07/07/2018 1:05 am0 commentsViews: 11

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জ বাস মিনিবাস কোচ মালিক সমিতি ও শাহজাদপুর পরিবহন মালিক সমিতির দ্বন্দ্বের জের ধরে ঢাকা-সিরাজগঞ্জ-পাবনা রুটে গত চার দিন ধরে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।
মঙ্গলবার সকাল থেকে সিরাজগঞ্জ থেকে শাহজাদপুর ও পাবনায় এই বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। একই সঙ্গে পাবনা থেকে ঢাকা, সিরাজগঞ্জ ও বগুড়া রুটেও বাস বন্ধ রয়েছে। এতে যাত্রীদের নানা ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। তবে ঢাকা-পাবনা রুটের দূরপালৱ্লার বাসগুলো বিকল্প পথে চলাচল করছে।
সিরাজগঞ্জ জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আনছার আলী জানান, রমজান মাসের শুরু থেকে রাজশাহী রুটে চেইন ছাড়াই দুটি বাস পরিচালনা করছে শাহজাদপুর মালিক সমিতি। ঈদের আগে তারা বিষয়টি মেনে নিয়েছিলেন। কিন্তু ঈদ পার হবার পর ধীরে ধীরে তারা আরও গাড়ি বাড়িয়ে দেয় এ রুটে। এ নিয়ে দুই সমিতির দ্বন্দ্বের জেরে ১ জুলাই জেনিন পরিবহন নামে একটি বাস আটকে রাখে শাহজাদপুর মালিক সমিতি। এর প্রতিবাদে শাহজাদপুরে রুটে কোন গাড়ি দিচ্ছি না, তাদের গাড়িও আসতে দেয়া হচ্ছে না।
এদিকে শাহজাদপুর বাস মালিক সমিতি কর্তৃক শাহজাদপুর রুট দিয়ে সিরাজগঞ্জ ও পাবনার জেলার বাস চলাচলে বাধা প্রদানের প্রতিবাদে এবং কয়েক দফা দাবি আদায়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জ পৌর কনভেনশন সেন্টারে এক যৌথ মতবিনিময় সভা করে রাজশাহী বিভাগীয় পরিবহন মালিক ও শ্রমিক ফেডারেশনের আঞ্চলিক কমিটি। সভায় জেলা প্রশাসনকে আগামি ১২ জুলাইয়ের মধ্যে শাহজাদপুর বাস মালিক সমিতি কর্তৃক বাধা প্রদানের কারণে বন্ধ হয়ে যাওয়া সিরাজগঞ্জ-শাহজাদপুর-পাবনা-ঢাকা রুটে বাস চলাচলের ব্যবস্থা করার দাবি জানান। অন্যথায় ১৩ জুলাই থেকে রাজশাহী বিভাগে পরিবহন ধর্মঘট শুরু করা হবে বলেও সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সিরাজগঞ্জ বাস মিনিবাস ও কোচ মালিক সমিতির সভাপতি জিন্না আলমাজী সংবাদটির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শাহজাদপুর বাস মালিক সমিতি কর্তৃক দীর্ঘদিন থেকে অবৈধভাবে চাঁদা আদায় করা হচ্ছে। আমাদের বাসের শ্রমিকদের সাথে খারাপ ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এর কোন ব্যবস্থা নেয়া হয় না। তাই ধর্মঘটে যাওয়া ছাড়া আমাদের কোন পথ খোলা নেই।

Leave a Reply