এ রকম মাদক সম্রাট আছে কত

26/05/2018 1:04 am0 commentsViews: 57

গত বুধবার রাজশাহীর এক মাদক সম্রাট দলবলসহ কঙবাজারে ধরা পড়েছে মাদকের বিশাল চালানসহ। মিউজিক ভিডিও শুটিংয়ের অভিনেতা-অভিনেত্রী, ক্যামেরাম্যানসহ তারা গিয়েছিলেন শুটিংয়ের কাজে। ঘটনা প্রকাশিত হওয়ার পর এখন চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসছে।
নগরীর ঘোষপাড়া মোড়ে বৱ্যাক ক্যাফে আর সরকার প্রোডাকশন হাউজ নামে সুসজ্জিত প্রতিষ্ঠান দুটি ছিল উঠতি বয়সের তর্বণ-তর্বণীর যাতায়াতে মুখর। দুটি প্রতিষ্ঠানই মাদক ও নারী ব্যবসায়ের কেন্দ্র হিসেবে চালু থাকার চাঞ্চল্যকর বিবরণী এখন প্রকাশ পাচ্ছে। এই দুই প্রতিষ্ঠানের মালিকের উত্থানের কাহিনীও চমকপ্রদ।
এই নগরীতে দোকান কর্মচারী থেকে মাত্র কয়েক বছরে শত কোটি টাকার বিষয়-সম্পদের অধিকারী হয়ে তিনি অবৈধ ব্যবসা জাঁকিয়ে বসেছিলেন সবার নাকের ডগায়। সবাইকে ম্যানেজ করে কীভাবে তিনি দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ ব্যবসা চালিয়ে এসেছেন সেটা বিষ্ময়কর।
এই মাদক সম্রাটের ব্যবসা ও যোগাযোগের ডালপালা যে কতদূর বিস্তৃত সেটাও এখন প্রকাশ পাচ্ছে। রাজনৈতিক-অরাজনৈতিক সব ৰেত্রেই তার বিচরণ ছিল অবারিত। তাই দিনের পর দিন মাদক ও নারী ব্যবসা চালিয়ে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ হতে মোটেই অসুবিধা হয়নি। স্থানীয়ভাবে কেউ তার কেশাগ্র স্পর্শ করতে পারেনি এও কম বিস্ময়কর নয়!
প্রশ্ন হলো, তার মদদদাতা ও সুবিধাভোগীর সংখ্যা কত? আর নগরীতে এই রকম বৱ্যাক ক্যাফে বা প্রোডাকশন হাউজের সংখ্যাই বা কত? এসব কি আড়ালেই থেকে যাবে?
মাদকের হাত থেকে যুব সমাজকে রৰা করতে হলে চলমান অভিযানকে শেষ পর্যন্ত অব্যাহত রাখতে হবে। পরিচয়, প্রভাব নির্বিশেষে মাদকের সাথে জড়িতদের শেকড়সহ উপড়ে ফেলা না হলে সমাজে মাদকের মত অবৈধ বাণিজ্যের বিস্তার রোধ করা কঠিন, অস্বীকার করা যাবে না।

Leave a Reply