নির্ধারিত সময়েই আইটি পার্কের কাজ শেষ হবে

12/05/2018 1:06 am0 commentsViews: 33

স্টাফ রিপোর্টার: নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই রাজশাহীতে আইটি পার্ক নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে জানিয়েছেন সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। তিনি বলেন, ‘আইটি পার্কের নির্মাণ কাজ র্বখে দিতে এখনও ষড়যন্ত্র চলছে। কিন্তু আমি এ ব্যাপারে সব সময় সজাগ থাকি, যেন কাজ বন্ধ না হয়। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই আইটি পার্কের নির্মাণ কাজ শেষ হবে।’
গতকাল শুক্রবার রাতে নগরীর ৫, ৬ ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের অংশগ্রহণে এক সুধী সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। বাদশা বলেন, আইটি পার্কের নির্মাণ বাধাগ্রস্ত করতে যে জমি পানি উন্নয়ন বোর্ডের, সে জমি নিজের দাবি করে আদালতে মামলা করা হয়েছে। তাই আইটি পার্কের নকশা পরিবর্তন করতে হয়েছে। কিন্তু আমরা আইটি পার্ক করছি।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা আরও বলেন, সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে যা করেছি, তা শুধু মানুষের জন্যই করেছি। রাজশাহীর এতো মসজিদ-মন্দির-শিৰা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে আমি ভূমিকা রাখতে পারব, এটা আগে বিশ্বাসই হতো না। কিন্তু আমিই এসব করেছি। সরকার আমাকে সহযোগিতা করেছে।
বাদশা বলেন, গত সিটি নির্বাচনে এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন মেয়র না হওয়ার কারণে সিটি করপোরেশন নগরীর উন্নয়নে ভূমিকাই রাখতে পারেনি। টাকা আসা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। রাস্তা, ফুটপাত আমাকে করতে হয়েছে। সিটি করপোরেশনকে টাকা জোগাড় করে দিতে হয়েছে। সম্প্রতি ৩০টা ওয়ার্ডের জন্য ১৭৩ কোটি টাকা এনে দিয়েছি। এই টাকায় কাজ করে কেউ যদি নিজের কৃতিত্ব দাবি করেন, তবে তা ভুল। এই কৃতিত্ব জননেত্রী শেখ হাসিনার। তাই আগামী সব নির্বাচনে এর প্রতিদান দিতে হবে।
সমাবেশে স্থানীয়রা ভাটাপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের উন্নয়নে ভূমিকা রাখার জন্য সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার কাছে অনুরোধ করেন। জবাবে সংসদ সদস্য বাদশা বলেন, শহরের প্রায় সব মসজিদের উন্নয়নে ভূমিকা রেখেছি। এটা আমার সৌভাগ্য। ভেড়িপাড়া জামে মসজিদের প্রয়োজন ছিল এক কোটি টাকা। সরকারের কাছ থেকে ৮০ লাখ টাকা এনে দিয়েছি। এই মসজিদের কাজ শেষে ভাটাপাড়া মসজিদের জন্যও কাজ করবো।
সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির রাজশাহী মহানগরের সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ প্রামানিক দেবু।
সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন জেলা যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ, ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নুর্বজ্জামান টুকু। সভাপতিত্ব করেন শিৰক গোলাম সারোয়ার স্বপন। স্বাগত বক্তব্য দেন অগ্রণী ক্রীড়াচক্রের প্রধান উপদেষ্টা খায়র্বল বাশার। পরিচালনায় ছিলেন সমাজসেবক আবুল বাশার। সমাবেশে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কামর্বজ্জামান কামর্ব, ওয়ার্কার্স পার্টির রাজপাড়া থানা সম্পাদক আবদুল মতিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশের শুর্বতে হড়গ্রাম বহুমুখি সমিতির সদস্যরা একটি মিছিল নিয়ে তাতে যোগ দেন। এতে নেতৃত্ব দেন সংগঠনটির সভাপতি আশরাফ বাবু।

Leave a Reply