দৌমায় রাসায়নিক হামলার শিকার ৫ শতাধিক মানুষ

12/04/2018 1:04 am0 commentsViews: 9

এফএনএস আনৱর্জাতিক ডেস্ক : সিরিয়ার পূর্ব ঘৌটার দৌমা শহরে পাঁচ শতাধিক মানুষ সন্দেহভাজন রাসায়নিক হামলার লক্ষণ নিয়ে স্বাস’্যকেন্দ্রে গেছেন। বুধবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস’্য সংস’া (ডবিস্নউএইচও)-এর ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল পিটার সালামা। বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শহরটিতে ডবিস্নউএইচও’কে অবাধ প্রবেশের সুযোগ দেওয়ারও আহ্বান জানান তিনি। গত শনিবার সিরিয়ার বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শহর দৌমাতে রাসায়নিক হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। যুক্তরাষ্ট্র ওই হামলার জন্য রাশিয়ার মিত্র সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল সরকারকে দায়ী করে। আর রাশিয়া ও সিরিয়া সরকার এজন্য উল্টো বিদ্রোহীদেরই দায়ী করে। ওই হামলায় অনৱত ৮৫ জন নিহত হন। রাসায়নিক হামলা তদনেৱ জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের আওতায় একটি বিশেষ প্যানেল গঠন করতে আলাদা দুটি প্রসৱাব দেয় যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া। গত মঙ্গলবার বিপরীত পক্ষের প্রসৱাবে ভেটো দিয়ে দুটি প্রসৱাবই আটকে দেয় তারা। ব্রিটিশ বার্তা সংস’া রয়টার্স জানিয়েছে, বিশ্ব স্বাস’্য সংস’ার বিবৃতিতে বলা হয়েছে ওই এলাকার আক্রানৱদের সেবায় সেখানে অবাধ প্রবেশের সুযোগ চায় তারা। স’ানীয়দের স্বাস’্য ঝুঁকি নির্ণয় এবং বিসৱৃত সেবা কার্যক্রম পরিচালনায় আগ্রহী ডবিস্নউএইচও। প্রতিষ্ঠানটির ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল পিটার সালামা জানিয়েছেন, আক্রানৱ মানুষদের জরম্নরি সেবা দিতে তার সংস’া প্রস’ত রয়েছে। সিরিয়ার পূর্ব ঘৌটার বেশিরভাগ বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকায় জাতিসংঘের বিশেষায়িত সংস’া ডবিস্নউএইচও-র প্রবেশাধিকার নেই। সন্দেহভাজন বিষাক্ত রাসায়নিক হামলায় আক্রানৱ দৌমাতেও তাদের প্রবেশের সুযোগ নেই।

Leave a Reply