মুঠোফোনে প্রেম, বিয়ের পর লাশ হলেন তর্বণী

14/03/2018 2:04 am0 commentsViews: 17

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায় এক নববধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম নুশরাত জাহান। তিনি খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলার শাহাপুর গ্রামের আক্তার শেখের মেয়ে। ২৩ বছরের এই তর্বণীকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে গোদাগাড়ীর হিজলগাছি গ্রামে শ্বশুর বাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামী সাকিব হোসেনকে (২৮) আটক করা হয়েছে।
পরিবারের বরাত দিয়ে গোদাগাড়ী থানার পুলিশ পরিদর্শক আলতাফ হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সকালে ঘুম থেকে উঠে স্ত্রীকে ঘরে রেখে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান সাকিব। পরে পরিবারের সদস্যরা ঘরে গিয়ে নুশরাতের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন।
বিষয়টি জানাজানি হলে বাড়িতে যায় পুলিশ। এ সময় লাশের গলার বাম পাশে আঘাতের চিহ্ন দেখতে পাওয়া যায়। এলাকায় গুঞ্জন রয়েছে, তাকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে। তাই ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়। পাশাপাশি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে স্বামী সাকিবকে।
তিনি আরও জানান, সাকিব পেশায় একজন ট্রলি চালক। মুঠোফোনে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল নুশরাতের। প্রায় চার মাস আগে খুলনা থেকে রাজশাহী এসে সাকিবকে বিয়ে করেন নুশরাত। এরপর থেকে শ্বশুর আরমান আলীর বাড়িতেই ছিলেন তিনি।
পরিদর্শক আলতাফ হোসেন জানান, থানায় রেখে সাকিবকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পুলিশ নুশরাতের মৃত্যুর কারণ তদন্ত করছে। আর নুশরাতের বাবার বাড়িতেও তার মৃত্যুর খবর দেওয়া হয়েছে। তারা রাজশাহী আসার পর এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

Leave a Reply