সিরীয় বিদ্রোহীদের গুলিতে রম্নশ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত

05/02/2018 1:04 am0 commentsViews: 16

এফএনএস আনৱর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ার বিদ্রোহীরা রাশিয়ার একটি যুদ্ধবিমানকে গুলি করে নামিয়ে পাইলটকে হত্যা করেছে।
পাইলট যুদ্ধবিমানটি থেকে বের হয়ে প্যারাশুট যোগে নেমে আসার পর তাকে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও বিদ্রোহীরা। গতকাল সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় ইদলিব প্রদেশে এসব ঘটনা ঘটেছে বলে খবর বার্তা সংস’া রয়টার্সের। ইদলিবের যে এলাকায় রাশিয়ার এসইউ-২৫ যুদ্ধবিমানটি ভূপাতিত হয়েছে সেখানে রাশিয়া ও ইরানের সমর্থনপুষ্ট সিরীয় সরকারি বাহিনীর সঙ্গে বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোর তীব্র লড়াই চলছে, পাশাপাশি চলছে বিমান হামলা। বিদ্রোহীদের একটি সূত্র রয়টার্সকে জানিয়েছে, ইদলিবের সারাকেব শহরের নিকটবর্তী ছোট শহর খান আল সুবলের ওপরে থাকাকালে রাশিয়ার বিমানটিকে গুলি করে ূপাতিত করা হয়, এর কাছ দিয়ে যাওয়া প্রধান মহাসড়ক ধরে সিরিয়ার সেনাবাহিনী ও ইরান সমর্থিত মিলিশিয়ারা সামনে অগ্রসর হওয়ার চেষ্টা করছে। তিনি আরও জানান, রাশিয়ার পাইলট বিমানটি থেকে বের হতে পারলেও তাকে ধরার চেষ্টারত বিদ্রোহীরা তাকে হত্যা করেছে। আল কায়েদার সাবেক সিরীয় শাখার একটি অংশ থারির আল শাম রাশিয়ার বিমানটিকে গুলি করে নামানোর দায় স্বীকার করেছে। কাঁধ থেকে ছোঁড়া যায় এমন বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে তাদের এক যোদ্ধা রাশিয়ার বিমানটিকে ভূপাতিত করেছে বলে দাবি গোষ্ঠীটির। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে গোষ্ঠীটির জ্যেষ্ঠ কমান্ডার মাহমুদ তুর্কোমানি বলেছেন, “আমাদের লোকজনের জন্য প্রতিশোধ নিতে যা করতে পারি তার সর্বশেষ নজির এটি। অপরাধী দখলদারেরা জানুক, আমাদের আকাশ আর আতঙ্কের জায়গা নয় এবং খোদার ইচ্ছায়, তারা মূল্য দেওয়া ছাড়া এটি অতিক্রম করতে পারবে না।” বিদ্রোহীরা জানিয়েছে, ভূপাতিত যুদ্ধবিমানটি বিভিন্ন গ্রাম থেকে একটি মহাসড়ক ধরে পালাতে থাকা বেসামরিক গাড়ির বহরকে লক্ষ্য করে বোমা বর্ষণ করছিল। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, বহনযোগ্য ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে যুদ্ধবিমানটি ভূপাতিত করা হয়েছে। পাইলট জানিয়েছিলেন, তিনি প্যারাশুট যোগে নেমে আসছেন, কিন’ নামার পর ভূমিতে তাকে হত্যা করা হয়েছে। “সন্ত্রাসীদের সঙ্গে লড়াইয়ে পাইলট নিহত হয়েছেন,” বলেছে মন্ত্রণালয়টি। বার্তা সংস’া টিএএসএস রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাতে জানিয়েছে, ইদলিবের যেখানে বিমানটি ভূপাতিত হয়েছে সেখানে পাল্টা হামলা চালিয়ে ৩০ জনেরও বেশি জঙ্গিকে হত্যা করেছে রাশিয়া। সিরিয়ার বিদ্রোহী গোষ্ঠীগুলোকে ম্যানপ্যাড ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করছে যুক্তরাষ্ট্র, এমন অভিযোগ ওঠার পর তা অস্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

Leave a Reply