আরডিএ চেয়ারম্যানের প্রচেষ্টায় বঙ্গবন্ধু স্কয়ার হচ্ছে নগরীতে

10/01/2018 2:08 am0 commentsViews: 93

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মহানগরীতে নির্মিত হতে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার। নগরীর তালাইমারী মোড়ে ৫৯ কোটি ২৮ লাখ টাকা ব্যয়ে অচিরেই এর নির্মাণ কাজ শুর্ব হবে। রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপৰের (আরডিএ) চেয়ারম্যান অধ্যৰ বজলুর রহমানের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রকল্পটি পাস হয়েছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে আরডিএ চেয়ারম্যান অধ্যৰ বজলুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে সামনে রেখে নগরীর সৌন্দর্যবর্ধনে তিনি উদ্যোগ নেন। এরই অংশ হিসেবে তিনি তালাইমারী মোড়ে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণের পরিকল্পনা করেন। দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর প্রকল্পটি একনেকে পাস হয়েছে। শিঘ্রই এর নির্মাণ কাজ শুর্ব করতে আরডিএ দরপত্র আহ্বান করবে বলেও জানান তিনি।
প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়ায় আরডিএ চেয়ারম্যান অধ্যৰ বজলুর রহমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। রাজশাহীবাসীর পৰ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদও জানান তিনি। আরডিএ’র বেসরকারি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা হাবিবুর রহমান বাবুও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
প্রসঙ্গত, গতকালের একনেক সভায় ১২ হাজার ৪১৫ কোটি ৭৯ লাখ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ের মোট ১৩টি প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভায় প্রকল্পগুলো অনুমোদন দেয়া হয়। অনুমোদিত ১৩টি প্রকল্পের সবগুলোই নতুন। মোট ব্যয়ের মধ্যে সরকারি অর্থায়ন ১১ হাজার ৮০৯ কোটি ৮২ লাখ টাকা, প্রকল্প সাহায্য ৫৯২ কোটি ৯৭ লাখ টাকা।
এই ১৩ প্রকল্পের একটি রাজশাহী নগরীতে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণ প্রকল্প। অন্য প্রকল্পগুলো হলো- উপজেলা কমপেৱঙ সমপ্রসারণ (২য় পর্যায়) প্রকল্প, সিরাজগঞ্জের যমুনা নদী থেকে পুনর্বদ্ধারকৃত ভূমির উন্নয়ন এবং প্রস্তাবিত অর্থনৈতিক অঞ্চল রক্ষা প্রকল্প, চট্টগ্রামের সাতকানিয়া ও লোহাগাড়া উপজেলায় সাঙ্গু এবং ডলু নদীর তীর সংরক্ষণ প্রকল্প, পানি সরবরাহে আর্সেনিক ঝুঁকি নিরসন প্রকল্প, রাজধানীর ইসিবি চত্বর থেকে মিরপুর পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন এবং কালশী মোড়ে ফ্লাইওভার নির্মাণ প্রকল্প, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা স্তম্ভ নির্মাণ প্রকল্প, খুলনা শহরে অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ কনভেনশন সেন্টার নির্মাণ প্রকল্প, ১৬০টি উপজেলায় শিক্ষার জন্য আইসিটি ট্রেনিং এবং রিসার্স সেন্টার নির্মাণ, মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম (৫ম পর্যায়); লালমনিরহাট টেঙটাইল ইনস্টিটিউট স্থাপন প্রকল্প, ঢাকা-সিলেট-তামাবিল-জাফলং জাতীয় মহাসড়কের জৈন্তা থেকে জাফলং পর্যন্ত সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প এবং নির্বাচিত বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়সমূহের সমপ্রসারণ প্রকল্প।

Leave a Reply