এফএনএস: কক্সবাজারের টেকনাফ ও মহেশখালীতে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুই ‘মাদক বিক্রেতা’ নিহত হওয়ার খবর দিয়েছে পুলিশ। গতকাল রোববার ভোর ৪টার দিকে মহেশ-খালীর ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের সাপেরডেইল এলাকায় এবং ভোর সাড়ে ৩টার দিকে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের দরগাহ পাড়া বড় কবরস’ান এলাকায় গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন- হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদার পাড়ার আজিজুল হকের ছেলে মিস্ত্রীর ছেলে মোহাম্মদ ইমরান ওরফে পুতুইয়া (৪৫) এবং ছোট মহেশখালী ইউনিয়নের দৰিণ-কূল এলাকার ইউসুফ আলীর ছেলে মাহমুদুল করিম (২৮)।
মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশের ভাষ্য, মাহমুদুল একজন চিহ্নিত মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী। মাদক ও অস্ত্র চোরাচালান এবং ডাকাতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে তার বির্বদ্ধে আধা ডজনের বেশি মামলা রয়েছে। আর ইমরানকে তালিকাভুক্ত মাদক বিক্রেতা দাবি করে টেকনাফ থানার ওসি রণজিত কুমার বড়ুয়া বলছেন, মাদক, অপহরণ ও হত্যাসহ তার বির্বদ্ধে থানায় ছয়টি মামলা রয়েছে।
ওসি প্রদীপ বলেন, কিছু ‘সন্ত্রাসী’ সাপেরডেইল এলাকায় জড়ো হয়েছে খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযানে যায়। ঘটনাস’লে পৌঁছানো মাত্র সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লৰ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে। এ সময় পুলিশও আত্মরৰার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটলে ঘটনাস’ল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস’ায় মাহমুদুলকে আটক করা হয়। পরে তাকে মহেশখালী উপ-জেলা স্বাস’্য কমপেৱক্সে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি। ঘটনাস’লে তলৱাশি চালিয়ে আটটি দেশি বন্দুক, ২০ রাউন্ড গুলি এবং দুই হাজার ইয়াবা পাওয়ার কথা বলেছে পুলিশ। এ অভিযানে পুলিশের সাত সদস্য আহত হওয়ার কথা বললেও তাৎৰণিকভাবে তাদের নাম ও পরিচয় জানাতে পারেননি তিনি।
ওসি রণজিত বলেন, দরগাহ পাড়া কবরস’ান এলাকায় কয়েকজন মাদক বিক্রেতা ইয়াবা বেচাকেনার জন্য জড়ো হয়েছে খবরে সেখানে অভি-যান চালায় পুলিশ।এ সময় মাদক বিক্রেতারা পুলিশকে লৰ্য গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এক পর্যায়ে সবাই পিছু হটলে ঘটনাস’লে ইমরানকে গুলিবিদ্ধ অবস’ায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস’্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় এক এসআইসহ পুলিশের চার সদস্য আহত হয়েছেন জানিয়ে ওসি বলেন, তাদের হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ঘটনাস’ল থেকে দুটি দেশিয় বন্দুক, একটি বিদেশি পিস্তল, পাঁচ রাউন্ড গুলি, দুটি রাম দা ও সাতটি ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।