আদালতে স্ত্রীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান

14/11/2017 2:02 am0 commentsViews: 20

বাগমারা থেকে বিশেষ প্রতিনিধি: বাগমারার বড়বিহানালী ইউনিয়নের গোয়াবাড়ী গ্রামের বৃদ্ধ আনিসুর রহমানের হত্যাকা-ের রহস্য উদ-ঘাটন হয়েছে। বৃদ্ধ আনিসুর রহমানের খুনি তার স্ত্রী জহুরা বেগম (৫৫)। জহুরা বেগম স্বামীকে হত্যা করার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন বলে মামলার তদনৱাকারি কর্মকর্তা থানার ওসি (তদনৱ) আসাদুজ্জামান আসাদ জানিয়েছেন।
শনিবার দুপুরে উপজেলার বড়-বিহানালী ইউনিয়নের গোয়াবাড়ী গ্রামের বৃদ্ধ আনিসুর রহমানের লাশ বসৱাবন্দি অবস’ায় তার বাড়ির পার্শ্বের একটি পুকুরের পানিতে এলাকার লোকজন ভাসতে দেখেন। বিষয়টি বাগমারা থানার পুলিশকে অবহিত করলে পুলিশ ঘটনাস’লে পৌঁছে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদনেৱর জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এ হত্যাকা-ের ঘটনায় নিহত বৃদ্ধ আনিসুর রহমানের ছেলে সাইদুল ইসলামকে (৩৫) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ আটক করে। আটককৃত সাইদুলের তথ্যনুযায়ী পুলিশ রোব-বার রাতে তার মা জহুরা বেগমকেও আটক করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জহুরা বেগম তার স্বামী আনিসুর রহমানকে হত্যার কথা স্বীকার করেন। সোমবার আটককৃত জহুরা বেগমকে আদালতে হাজির করা হলে তিনি হত্যাকা-ের বিষয়ে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।
মামলার তদনৱকারী কর্মকর্তা ওসি (তদনৱ) আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, বৃদ্ধ আনিসুর রহমান হত্যার সাথে আরো কেউ জড়িত আছে। তাদের বিষয়ে পুলিশ খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারণেই বৃদ্ধ আনিসুর রহমানকে হত্যা করা হয়েছে বলে তার স্ত্রী জহুরা বেগম স্বীকার করেছেন।

Leave a Reply