অবৈধ বিদেশীদের বিরম্নদ্ধে অভিযান নামছে আইন- শৃঙ্খলা বাহিনী

14/11/2017 2:02 am0 commentsViews: 9

এফএনএস: বিদেশী নাগরিকরা এদেশে নানা ধরনের অবৈধ ও অপরাধমূলক কর্মকা-ে জড়িয়ে পড়ছে। এ পরিসি’তিতে অপরাধে যুক্ত এবং অবৈধভাবে বসবাসকারী বিদেশী বিরম্নদ্ধে শিগগিরই অভিযানে নামছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। বর্তমানে বাংলাদেশে বৈধ-অবৈধভাবে প্রায় ২ লাখ বিদেশী বসবাস করছে। তার মধ্যে সহস্রাধিক বিদেশী নানা ধরনের অপরাধে জড়িয়ে পড়েছে। রাজধানী ঢাকাসহ দেশে অবস’ানরত ১০ দেশের প্রায় ১ হাজার অবৈধ বিদেশী নাগরিকের বিরম্নদ্ধে নানা ধরনের অপরাধের গুরম্নতর অভিযোগ পাও-য়ায় গোয়েন্দা সংস’াগুলো তাদের উপর নজরদারি শুরম্ন করেছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সংশিস্নষ্ট সূত্রে এ খবর জানা যায়।
সংশিস্নষ্ট সূত্র মতে, শুধুমাত্র রাজ-ধানীতেই ৫ শতাধিক অবৈধভাবে অবস’ানকারী বিদেশী নাগরিক প্রতারণা, ক্রেডিটকার্ড জালিয়াতি, জঙ্গি তৎপরতা, আদম পাচার, জাল ডলার ব্যবসা, মাদক পাচারের মতো অপরাধে জড়িয়ে পড়ার তথ্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে রয়েছে। বিদেশী ওসব অপরাধীরা ইন্টারনেটে, ফেসবুক, ই-মেইল, হোয়াটএ্যাপ, ম্যাসেঞ্জারসহ নানা ধরনের পদ্ধতিতে প্রতারণার ফাঁদ পেতে থাকে। ওসব বিদেশী নাগরিককে সহায়তা করছে অপরাধের সাথে জড়িত কিছু এদেশের নাগরিক। অতিসম্প্রতি ৩ আফ্রিকান নাগরিককে আড়াই লাখ ইউরো বাংলাদেশী মুদ্রায় আড়াই কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে র‌্যাব।
সূত্র জানায়, দুই বিদেশী হত্যাকা-ের ঘটনা এবং বেশ কিছু বিদেশী প্রতারণার অভিযোগে প্রেফতারের পর বিদেশী নাগরিকের ডাটাবেজ তৈরির কাজ করে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ। স্পেশাল ব্রাঞ্চের তথ্যানুযায়ী, চলতি বছরের মে মাস থেকে জুলাই পর্যনৱ তিন মাসে প্রায় ১ হাজার বিদেশীর ওপর অনুসন্ধান ও নজর-দারি করা হয়েছে। তাতে দেখা গেছে ১৫৮ জন অবৈধভাবে অবস’ান করছে। তা থেকে মাত্র ১ জনকে বিদেশে ফেরত পাঠানো গেছে। ৯৯ বিদেশীর বিরম্নদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই সময়ে তাদের মধ্যে ২৯ বিদেশী জরিমানা দিয়ে দেশ ছেড়ে চলে যায়। স্পেশাল ব্রাঞ্চের ডাটা-বেজ অনুযায়ী, দেশে প্রায় দুই লাখ বিদেশী অবস’ান করছে। তাদের মধ্যে প্রায় ১৭ হাজার আফ্রিকানসহ বিভিন্ন দেশের নাগরিক। যারা দেশের জন্য বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। তাদের মধ্যে সহস্রাধিক বিদেশী নাগরিককে নানা ধরনের অপরাধমূলক কর্মকা-ে জড়িয়ে পড়ার তথ্য ও তালিকা পেয়েছেন তদনৱকারীরা। কিন’ তাদের ওপর যথাযথ নজরদারি নেই। অবৈধ বিদেশীরা কোথায়, কী ধরনের কাজ করছে, অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে কি না সেই বিষয়ে নিয়মিত নজরদারি বা আইনানুগ ব্যাবস’া গ্রহণপূর্বক পদক্ষেপের তেমন উদ্যোগ নেই।
এ প্রসঙ্গে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একজন দায়িত্বশীল কর্ম-কর্তা জানান, বাংলাদেশে যেসব বিদেশী বসবাস বা অবস’ান করছেন। তাদের মধ্যে আফ্রিকান নাগরিকরাই বেশিরভাগ নানা ধরনের অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আফ্রিকা অঞ্চলের কিছু মানুষ তাদের পাসপোর্ট ফেলে দিচ্ছে। তারপর তাদের অবস’ানে সহযোগিতা করছে স’ানীয় কিছু অর্থলোভী নারী-পুরম্নষ। শুধু তাই নয়, অপরাধেও মদদ জোগাচ্ছে। ধরা কেউ পড়লেও জামিনে বেরিয়ে ফের অপরাধে জড়াচ্ছে তারা। এ পরিসি’তিতে বাংলাদেশে অবস’ানকারী বিদেশী অপরাধীদের শনাক্ত করার পর তালিকা তৈরি করে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে কী করণীয় তা নিয়ে সংশিস্নষ্ট বিভাগগুলোর সাথে কাজ শুরম্ন করার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

Leave a Reply