কাতালান পার্লামেন্টের স্পিকারের জামিন

11/11/2017 1:04 am0 commentsViews: 6

এফএনএস ডেস্ক: বিদ্রোহের অভি- যোগে গ্রেপ্তার কাতালান পার্লামেন্টের স্পিকার ও চার এমপিকে জামিনে মুক্তি দিয়েছে স্পেনের হাইকোর্ট।
বার্তা সংস’া রয়টার্স জানায়, গত বৃহস্পতিবার স্পিকার কারমে ফোর্সাদেলকে দেড় লাখ ইউরো এবং বাকি প্রত্যেককে ২৫ হাজার ইউরো জামানত দেওয়ার শর্ত সাপেৰে জামিনের আদেশ দেয়।
জামানতের অর্থ পরিশোধের আগ পর্যনৱ তাদের মাদ্রিদের কাছে আলকালা মেকো কারাগারে রাখা হবে।
অন্য একজন এমপিকে বিনা জামান-তে জামিন দেওয়া হয়েছে।
বিচারক পাবলো লারেনা রায়ে বলেন, “অভিযুক্ত সবাই কথা দিয়েছে, হয় তারা রাজনীতি থেকে সরে যাবে নতুবা রাজনীতিতে সক্রিয় থাকলে ভবিষ্যতে আর কখনও সংবিধান বিরোধী কোনো কাজ করবে না।”
স্পেনের প্রসিকিউটরের পৰ থেকে তাদের কারাদ- দেওয়ার আবেদন করা হয়েছিল। আর অভিযুক্তদের আইনজীবীরা তাদের মুক্তির আবেদন করেছিলেন।
গত ১ অক্টোবর গণভোট এবং তার ভিত্তিতে ২৭ অক্টোবর ‘স্বায়ত্বশাসিত’ কাতালুনিয়ার পার্লামেন্টের স্বাধীনতা ঘোষণার পর স্পেন সরকার অঞ্চল-টির নিয়ন্ত্রণ নেয়।স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাখয় কাতালান পার্লামেন্ট ভেঙে দেন এবং আঞ্চলিক সরকারকে বরখাসৱ করে নতুন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেন।
এরপর স্পেনের প্রধান প্রসিকিউটর কাতালানের বরাখাসৱ প্রেসিডেন্ট কার্লেস পুজদেমনসহ পার্লামেন্টের স্বাধীনতাপনি’ নেতাদের বিরম্নদ্ধে হাই কোর্টে বিদ্রোহ, রাষ্ট্রদ্রোহ এবং জনগণের অর্থ অপচয়ের অভিযোগ আনেন।
যদিও স্বাধীনতা ঘোষণা দিয়েই চার-সহযোগী নিয়ে বেলজিয়ামে পালিয়ে গিয়েছিলেন পুজদেমন।
হাই কোর্টে অভিযোগ শুনানির প্রথম দিন তাদের আদালতে উপসি’ত থাকার নির্দেশ দেওয়া হলেও তারা ব্যর্থ হন এবং তাদের বিরম্নদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।
পরে স্পেনের সুপ্রিম কোর্ট পুজদেমন ও তার চার সহযোগির বিরম্নদ্ধে ইউরোপীয় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে। তার পর বেলজিয়াম পুলিশের কাছে সহযোগীদের নিয়ে আত্মসমর্পণ করেন কাতালান নেতা। যদিও পরে তাদের শর্তসাপেৰে মুক্তি দেওয়া হয়।
এখনও কাতালানের বরখাসৱ হওয়া সরকারের আট সদস্য এবং স্বাধীনতাপনি’ প্রধান দুই দলের কেন্দ্রীয় পর্যায়ের প্রধান দুই নেতা আদালতের মুখোমুখি হওয়ার অপেৰায় আছেন। তাদের বিরম্নদ্ধেও হাইকোর্টে বিদ্রোহ ও রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়েছে।

Leave a Reply