পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিৰক নিহত, আহত ২

12/10/2017 1:05 am0 commentsViews: 32

স্টাফ রিপোর্টার: নগরীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের একজন শিৰক নিহত ও দু’জন আহত হয়েছেন।
গতকাল বুধবার নগরীর আলুপট্টি, নওদাপাড়া কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক ও বাসটার্মিনালের সামনে এসব দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিৰক শাহমখদুম থানার মধ্য নওদাপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে আব্দুর রউফ (৫৫)।
আহতরা হলেন, মতিহার থানার সাতবাড়িয়া এলাকার মৃত আবু তাহেরের মেয়ে মজিরন (৬৫) ও বড় বনগ্রাম এলাকার জমসেদের ছেলে রাউন (১৮)।
রামেক হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে নওদাপাড়া কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের সামনে মাহেন্দ্রা ট্রাক্টর ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে করে রাস্তায় ছিটকে পড়ে মাথায় গুর্বতর আঘাত পান তিনি। এছাড়াও ট্রাক্টরের সাথে ধাক্কা লেগে গুর্বতর আহত হন এবং ঘটনাস্থলেই মারা যান শিৰক আব্দুর রউফ। এছাড়াও মোটরসাইকেলটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনার পরপরই সেখান থেকে পালিয়ে যায় ট্রাক্টরটি। এসময় উক্ত শিৰককে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালের জর্বরি বিভাগে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।
নগরীর শালবাগান পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট থেকে দায়িত্ব পালন শেষে মধ্য নওদাপাড়া নিজ বাড়ি ফিরছিলেন শিৰক আব্দুর রউফ। ট্রাক্টরটি অপরদিক থেকে আসছিল। নওদাপাড়া কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের সামনে রাজশাহী নওগাঁ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
এ ব্যাপারে শাহমখদুম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রায়হান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ট্রাক্টরটি আটক করা সম্ভব হয়নি। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।
এদিকে, নগরীর আলুপর্টি মোড়ে অটোরিকশা উল্টে মজিরন নামে এক নারী যাত্রী গুর্বতর আহত হয়েছেন। গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।
অপরদিকে, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে নওদাপাড়া বাস টার্মিনালের সামনে মাইক্রোবাস ও মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ হয়। এতে করে মোটরসাইকেল চালক রাউন গুর্বতর আহত হন। তিনি বড় বনগ্রাম নিজ বাড়িতে ফিরছিলেন। তাকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালের ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, রাউনের অবস্থা আশংকাজনক।

Leave a Reply