রিমান্ডে নিজেকে জড়িয়ে কোন স্বীকারোক্তি দেয়নি টাইগার

30/09/2017 1:06 am0 commentsViews: 55

স্টাফ রিপোর্টার: পবার শাহাবুল হত্যা মামলার এজাহার ভুক্ত আসামি নগরীর বহরমপুর এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী টাইগার এর ৩ দিনের রিমান্ড শেষে গতকাল শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে সে এই হত্যার ঘটনার সাথে নিজেকে জড়িয়ে কোন স্বীকারোক্তি দেয়নি তবে তার কাছ থেকে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানায় পুলিশ।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পবা ওসি (তদন্ত) হাসমত আলী জানান, শাহাবুল হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি টাইগারকে ৩ দিনের রিমান্ড শেষে গতকাল শক্রবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে সে এই হত্যার ঘটনার সাথে নিজেকে জড়িয়ে কোন স্বীকারোক্তি দেয়নি। তবে তার কাছ থেকে এই হত্যার ব্যাপারে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। মামলার তদন্তের স্বার্থে এখনই তথ্যগুলো জানাতে চাননি তদন্তকারী কর্মকর্তা। এছাড়া মামলার মূল আসামি রুবেলসহ অন্যান্যদের ধরতে বিভিন্ন জায়গায় অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি।
গত ২৩ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বহরমপুর এলাকার আইডি হাসপাতালের স্টাফ কোয়াটার থেকে গ্রেফতার করা হয় মামলার এজাহারভুক্ত আসামি টাইগারকে। গত ২৪ সেপ্টেম্বর রোববার টাইগারকে আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়। আদালত তার ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।
উল্লেখ্য, গত ২২ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকালে পবার কৈকুড়ি এলাকার একটি রাস্তার পাশে শাহাবুলের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। শাহাবুল রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার কাশিয়াডাঙ্গা ফেত্তাপাড়া এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে। তিনি পুকুরে মাছ চাষ করতেন। এছাড়া তিনি জমি কেনা-বেচার ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত ছিলেন।
নিহত শাহাবুলের মা থানায় দায়েরকৃত এজাহারে উল্লেখ করেন, একটি জমি কিনতে শাহাবুল জমির মালিককে ৬ লাখ টাকা বায়না দিয়েছিলেন। বাকি টাকা জমি রেজিস্ট্রি দেয়ার সময় পরিশোধের কথা ছিল। কিন্তু দীর্ঘ দিন ধরেই জমির মালিক রেজিস্ট্রি দিচ্ছিলেন না। আবার বায়নার ছয় লাখ টাকাও তিনি ফেরত দিচ্ছিলেন না। এ নিয়ে তাদের মধ্যে চরম দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। এই দ্বন্দ্বের মিমাংসার নামে গত বৃহস্পতিবার রাতে বহরমপুর মোড় থেকে একটি সাদা প্রাইভেটকারে করে এক আত্মীয়র সামনে থেকেই শাহাবুলকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পরদিন তার গলাকাটা লাশ পাওয়া যায়। এ কারণে জমির ওই বিক্রেতাকে মামলার প্রধান আসামি করা হয়েছে। বাকি পাঁচ আসামির মধ্যে জমি বিক্রেতার ছেলেসহ তার নিকটাত্মীয়রা আছেন।

Leave a Reply