নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের প্রত্যাশা রাজশাহীবাসীর

14/09/2017 1:07 am0 commentsViews: 32

বিশেষ প্রতিনিধি : বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজশাহী আগমনকে ঘিরে সর্বত্র বিরাজ করছে সাজ সাজ রব। এরই মধ্যে বিভিন্ন মহল থেকে একাধিক দাবি উঠে এলেও রাজশাহীর বিদ্যুৎ ব্যবস্থায় যে বেহাল দশা তা নিরসনে নেই সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা। এবিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ নজর প্রত্যাশা করছে রাজশাহীবাসী।
২০১৮ সালের মধ্যেই শিৰা নগরী রাজশাহীতে বঙ্গবন্ধু সিলিকন সিটির নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে ঘোষণা রয়েছে। রাজশাহী মহানগরীর রাজপাড়া থানার জিয়ানগর এলাকায় ৩১ দশমিক ৬৩ একর জমির ওপর তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর এই পার্ক গড়ে তোলা হচ্ছে। এ বছরের ১৩ জানুয়ারি এর ভিত্তিপ্রস্তরও স্থাপন করেছেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। সিলিকন সিটি স্থাপনের মধ্য দিয়ে রাজশাহী প্রবেশ করবে যোগাযোগের উৎকর্ষে। যার জন্য প্রয়োজন হবে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ। কিন্তু বিদ্যুতের বিরাজমান সমস্যা পিছু নিলে সিলিকন সিটির যে কর্মযজ্ঞ তা বজায় রাখতে বিঘ্নের সৃষ্টি হবে এব্যাপারে কারো দ্বিমত নেই। বিদ্যুৎ ছাড়া উন্নয়ন কল্পনাও করা যায় না। কিন্তু ঘন ঘন লোড শেডিং ভোগাচ্ছে রাজশাহীবাসীকে। অসমর্থিত সূত্র মতে রাজশাহীতে প্রতিদিন বিদ্যুতের চাহিদা প্রায় ৯৭ মেগাওয়াট। অবশ্য এই চাহিদা বিভিন্ন সময় ওঠা নামা করে। কিন্তু সরবরাহ পাওয়া যায় ৭০ থেকে ৮০ মেগাওয়াট। এৰেত্রেও ঘটে ব্যতিক্রম। এটিও হয় কম বেশী। বিদ্যুতের সমস্যার কারণে রাজশাহীতে যা কিছু সামান্য শিল্প কারখানা রয়েছে তা সচল রাখা দায় হয়ে পড়েছে। স্থবিরতা দেখা দিচ্ছে শিৰা, চিকিৎসা সেবাসহ বিভিন্ন অফিস আদালতের কাজে কর্মে।
বিদ্যুৎ সমস্যা নিরসণের জন্য রাজশাহীর কাঁটাখালিতে দুটি বেসরকারি বিদ্যুৎ পৱ্ল্যান্ট স্থাপন করা হলেও এর সুফল দেখছে না রাজশাহীবাসী। দিনকে দিন বাড়ছে লোডশেডিং। ঘণ্টার পর ঘণ্টা লোডশেডিংয়ের যন্ত্রণায় অতিষ্ট হয়ে পড়েছে মানুষ। সূত্র মতে দেশে বিদ্যুতের উৎপাদনে কোন ঘাটতি না থাকলেও বাস্তব চিত্র ভিন্ন। অবশ্য এর জন্য দায়ী করা হচ্ছে সঞ্চালন লাইনের ত্র্বটিকে। সব মিলিয়ে রাজশাহীর মানুষের অন্যতম প্রত্যাশা উন্নয়নের রূপকার প্রধানমন্ত্রীর নিকট রাজশাহীর বিদ্যুৎ সমস্যা নিরসনের।

Leave a Reply