স্টাফ রিপোর্টার: দেশে প্রতিবছর জলাতঙ্কে মারা যায় ২ হাজারের বেশি মানুষ। আরা সারা বিশ্বে মারা যায় প্রায় ৬০ হাজার। এরমধ্যে শতকরা ৯০ ভাগ আক্রান্ত হয় এশিয়া ও আফ্রিকার দেশগুলোতে।
গতকাল শুক্রবার বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস উপলৰে প্রাণীসম্পদ বিভাগ রাজশাহীর র‌্যালি শেষে আলোচনা সভায় এই তথ্য জানানো হয়।
সভায় আরো জানানো হয়, দেশে বছরে জলাতঙ্ক ভ্যাকসিন নেয় ৩ লাখ মানুষ। এছাড়া আমাদের দেশে জলাতঙ্কে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয় ছাগল। ২০১৬ ও ২০১৭ সালে সড়ক দুর্ঘটনার চেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে জলাতঙ্কে আক্রান্ত হয়ে। এই রোগ প্রতিরোধে ভ্যাকসিন নেবার পাশাপাশি সচেতনতা বাড়াতে হবে। এবছর দিবসের প্রতিপাদ্য ‘জলাতঙ্কঃ অপরকে জানান, জীবন বাঁচান’।
দিবসটি উপলৰে রাজশাহী প্রানী সম্পদ অধিদপ্তর সকাল ৯টায় জেলা কার্যালয় থেকে র‌্যালি বের করে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদৰিণ করে সম্মেলন কৰে আলোচনা সভার আয়োজন করে। বিভাগীয় প্রাণী সম্পদ দপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা: মো: হুমায়ন কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন বিভাগীয় উপ পরিচালক এটিএম ফজলুল কাদের মলিৱক। বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস’্য কর্মকর্তা ডা: এস এ এম আনজুমান আরা, জেলা কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক এপি ড. ইসমাইল হক, জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ড. জুলফিকার মোহাম্মদ আকতার ফার্বক। বক্তব্য রাখেন বোয়ালিয়া প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ফজলে রাব্বি। কিনোট পেপার উপস’াপন করেন পবা ভ্যাটেনারী সার্জন সাগর আহম্মেদ।