নগরীর নদীর ধারে রহস্যজনক কারণে নারী অগ্নিদগ্ধ,আটক ১

08/09/2017 1:07 am0 commentsViews: 76

স্টাফ রিপোর্টার: নগরীর দরগাপাড়া নদীর ধারে (রাব্বা জিমের সামনে) রহস্যজনক কারণে রেখা (৪০) নামে এক নারী মারাত্মকভাবে অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি কলাবাগান এলাকার কামর্বলের স্ত্রী।
এ ঘটনায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে নগরীর জোতমহিষ এলাকা থেকে ফেরদৌসী বেগম নামে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।
ভুক্তভোগির অভিযোগ, অপর এক নারী তার গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ বলছে, তিনি নিজে গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়েছেন নাকি কেউ তার গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়েছে তা নিয়ে পুলিশ তদন্ত করছে।
রামেক হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল সন্ধ্যায় দরগা মসজিদে নামাজ শেষে রেখা নদীর ধারে হাঁটাহাটি করছিলেন। হঠাৎ করেই প্রত্যৰদর্শীরা তার শরীরে আগুন জ্বলতে এবং এদিক সেদিক ছুটোছুটি করতে দেখেন। এ সময় তিনি সারা শরীরে আগুন নিয়ে চিৎকার করতে করতে দৌড়ে সামনে একটি টহল পুলিশের মাইক্রোবাসের দিকে এগিয়ে যান। কিন্তু মালোপাড়া ফাঁড়িতে কর্মরত এক এএসআই তাকে কোন রকম সহযোগিতা করেননি বলে প্রত্যৰদর্শীরা অভিযোগ করেন।
হোসেনীগঞ্জ এলাকার প্রত্যৰদর্শী স্বাধীন বলেন, আমি নদীর পাড়ে নৌকায় বসে ছিলাম। উক্ত মহিলাকে শরীরে আগুন নিয়ে দৌড়াদড়ি করতে দেখতে পাই। এ সময় আমি তাকে নদীতে ঝাঁপ দিতে বলি। তিনি ওই সময় নদীর পানিতে ঝাঁপ দেন। এ সময় তার শরীরের সমস্ত কাপড় পুড়ে যায় এবং আগুনে শরীর ঝলসে যায়। এরপর পাশের একটি বাড়ি থেকে কাপড় সংগ্রহ করে তাকে উদ্ধার করা হয় এবং রামেক হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। এছাড়াও উদ্ধারকারী বলেন, আমি একজন বোরখা পরিহিত নারীকে দৌড়ে পালাতে দেখেছি। তবে তিনি তাকে অগ্নি সংযোগ করেছেন কিনা এ ব্যাপারে তিনি কিছু বলতে পারেন নি।
এদিকে রামেক হাসপাতালের বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জারী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডাঃ আফরোজা নাজনিন বলেন, রেখার শরীরের ৮০ ভাগ আগুনে পুড়ে গেছে। তার সম্পর্কে এখন কিছু বলা মুশকিল। আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাবো।
এ ব্যাপারে বোয়ালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমানউল্লাহ বলেন, অগ্নিদগ্ধ নারীকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাৎৰনিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সেখানে তদন্ত শেষে জানা যাবে অগ্নিদগ্ধ নারী নিজে তার শরীরে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন নাকি অন্য কেউ তার শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে।
প্রত্যৰদর্শীরা অগ্নিদগ্ধ রেখার উদ্ধৃতি দিয়ে আরো বলেন, বোরখা পরিহিত উক্ত নারী রেখার পূর্ব পরিচিত এবং সে তার গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে বলেও তিনি জানান।

Leave a Reply