ছুটির দিনের বিনোদন ভাসিয়ে দিল বৃষ্টি

12/08/2017 1:08 am0 commentsViews: 35

স্টাফ রিপোর্টার: প্রতি শুক্রবার হাজারো বিনোদন পিপাসু মানুষের ভিড় জমে রাজশাহী নগরীর পদ্মাপাড়ে। শুধু তর্বণরাই নয়, ছুটির দিন হওয়ায় এ দিন সব বয়সি মানুষের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে বিস্তৃত পদ্মা পাড়ের টি-বাঁধ, লালন শাহ মঞ্চ, মুক্ত মঞ্চসহ অন্যান্য স্থান।
নদীর বুক থেকে ভেসে আসা শীতল বাতাসেই বিনোদন খোঁজেন তারা। কিন্তু এই শুক্রবারে তাদের বিনোদনটা ভাসিয়ে দিল বৃষ্টি। গতকাল বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বৃষ্টি চলল একটানা। সন্ধ্যায় বৃষ্টির পরিমাণ কমলেও একেবারে থেমে যায়নি। ফলে পদ্মাপাড় ছিল একেবারেই ফাঁকা।
বৃষ্টির খানিক আগে লালন শাহ মঞ্চে গিয়েছিলেন রাজশাহী কলেজের শিৰার্থী জেসমিন যুথি। মঞ্চের গ্যালারিতে বসে উপভোগ করছিলেন পদ্মার স্রোতধারা। এরই মধ্যে আচমকাই শুর্ব হলো বৃষ্টি। ভিজে জবুথবু যুথি বলেন, ছুটির দিনে বৃষ্টি আসতে কে বলেছিল! ভেবেছিলাম নৌকায় চড়ে একটু নদীতে ঘুরবো। এখন বৃষ্টির মাঝে বাড়ি ফেরার রিকশায় পাওয়া যাচ্ছে না। নগরীর বড়কুঠি এলাকায় পদ্মা গার্ডেনে ভ্যানে করে চটপটি বিক্রি করেন মোতাহার হোসেন। কিন্তু বৃষ্টিতে মোতাহার তার দোকান খুলতেই পারেননি। আশপাশের ফাঁকা পরিবেশ দেখিয়ে তিনি বলেন, দেখছেনই তো লোকজন নাই। ব্যবসাটাও ভাসিয়ে দিল বৃষ্টি।
রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের পর্যবেৰক লতিফা হেলেন জানান, কয়েকদিন বিরতির পর গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টা থেকে বৃষ্টি শুর্ব হয়। গতকাল শুক্রবার রাত ১১টায় এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ৬৭.৫ মিলিমিটার। এখনও ঝিরিঝিরি বৃষ্টি হচ্ছে। এই বৃষ্টিতে রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন নিচু এলাকায় পানি জমে গেছে। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন মানুষ।
স্থানীয় কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, কচি ধানের জমির জন্য এই বৃষ্টি উপকার বয়ে আনছে। তবে ৰতি হচ্ছে সবজির ৰেতের। আর আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আরও কিছু দিন এমন বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে রাজশাহী অঞ্চলে।

Leave a Reply