অসাম্প্রদায়িক ঐতিহ্য তুলে ধরতে আল্পনার রঙে রাঙিয়ে নববর্ষকে বরণ

14/04/2017 1:07 am0 commentsViews: 32

স্টাফ রিপোর্টার: আল্পনায় আল্পনায় বাংলাদেশ-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, আল্পনায় আল্পনায় রঙে রাঙিয়ে নববর্ষকে বরণ করছে রাজশাহীর মানুষ। অসাম্প্রদায়িকতার সুতিকাগার হচ্ছে রাজশাহী। রাজশাহীর মানুষ প্রথম বাংলা ভাষার জন্য রক্ত দিয়েছিল।  রাজশাহীর মানুষ নিজের অস্তিত্বের জন্য লড়াই করতে পারে । এর প্রমাণ অতিতে বহু রয়েছে। তাই বাংলাদেশ কেন রাজশাহীর মানুষও আল্পনা আঁকিয়ে বাঙ্গালীর অসাম্প্রদায়িক ঐতিহ্যকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরতে সৰম হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় নগরীর লালন মঞ্চ সংলগ্ন রোডে আল্পনায় আল্পনায় বাংলাদেশের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।
এই আল্পনার মাধ্যমে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পর্যন্ত আলোড়ন সুষ্টি করেছে। আল্পনার মাধ্যমে কোন জাতি যে তার পরিচিতিকে তুলে ধরতে পারে বাংলাদেশ তার প্রমাণ। বিশ্বের কোন জাতির এ ধরনের উদাহরণ নেই। যেটা বাঙ্গালীরা তুলে ধরতে সৰম হয়েছে। বাঙ্গালীরা সংস্কৃতি কেন কোন কাজে পিছিয়ে নেই। বাংলাদেশে একই সাথে আল্পনায় আল্পনায় নববর্ষকে বরণ করার প্রস’তি চলছে।
এতে প্রধান অতিথি ও উদ্বোধন হিসাবে উপসি’ত থেকে এর উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি ও রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য জননেতা ফজলে হোসেন বাদশা। তারা তুলি নিয়ে আল্পনা আঁকিয়ে এর শুভ উদ্বোধন করেন। এসময় উপসি’ত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার।
নাট্যজন কারার্বলৱাহ সরকার কামালের সভাপতিত্বে বাংলা লিংক, এশিয়াটিক বাংলাদেশ ও বার্জার পেইন্টস-এর আয়োজনে নগরীর ফায়ারব্রিগেড মোড় থেকে দরকারপাড়া কেন্দ্রীয় ঐদগাহ পর্যন্ত আল্পনা আঁকিয়ে নববর্ষকে বরণ করে নেয়া হয়।

Leave a Reply