রাসিকের বর্ধিত হোল্ডিং ট্যাক্স কমানোর আশ্বাস মেয়রের

12/04/2017 1:05 am0 commentsViews: 24

স্টাফ রিপোর্টার: অস্বাভাবিকভাবে বৃদ্ধি করা হোল্ডিং ট্যাক্স কমানোর আশ্বাস দিয়েছেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। মঙ্গলবার (১১ এপ্রিল) বিকেলে এ নিয়ে নগর ভবনের সভাকৰে মতবিনিময় সভা হয়। সভা শেষে তিনি এই আশ্বাস দেন।  পরে নাগরিক অধিকার সংরৰণ সংগ্রাম পরিষদ নেতারা এ ব্যাপারে স্মারকলিপি দেন।
স্মারকলিপিতে করপোরেশন এলাকায় অস্বাভাবিকহারে বাড়ানো হোল্ডিং ট্যাক্স কমানোসহ তিনদফা দাবি জানানো হয়। নাগরিক অধিকার সংরৰণ সংগ্রাম পরিষদের অন্য দাবিগুলো হচ্ছে- সিটি করপোরেশন কর্তৃক ট্রেড লাইসেন্স ও সাইনবোর্ড ফি প্রত্যাহার করা।
সভায় সিটি মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, নগরবাসীর আশা-আকাঙৰা পূরণের অনন্য প্রতিষ্ঠান সিটি করপোরেশন। নাগরিক সেবার অনন্য এ প্রতিষ্ঠানটি জনগণের কল্যাণে কাজ করে চলেছে। নাগরিকদের প্রদেয় ট্যাক্সে এ প্রতিষ্ঠানটি নগরবাসীকে সেবা ও উন্নয়নসহ সকল ৰেত্রে সহায়তা দিয়ে থাকে। জনগণই সকল ৰমতার উৎস। তাই তাদের সন’ষ্টির মধ্য দিয়েই কাজ করতে হবে।
তিনি বলেন, রাজশাহীতে গ্যাস, টিভি স্টেশন স’াপনসহ বিভিন্ন আন্দোলনে গুর্বত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে নগরবাসী। আর তার ফলেই নগরবাসীর এ সকল প্রত্যাশা পূরণে সৰম হয়েছে।
সিটি করপোরেশন আরোপিত হোল্ডিং ট্যাক্স, ট্রেড লাইসেন্স ফি এবং আরোপিত সাইনবোর্ড ফি বিষয়ে তিনি বলেন, বিভিন্ন পেশাজীবী ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করে খুব শীঘ্রই এ সমস্যার সমাধান করা হবে। এ বিষয়ে তিনি নগরবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন। এর আগে সংগ্রাম পরিষদের নেতৃবৃন্দ একটি স্মারকলিপি মেয়র মহোদয়ের কাছে হস্তান্তর করেন।
মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ২৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার্বল আমিন আযব, নাগরিক অধিকার সংরৰণ সংগ্রাম পরিষদের আহবায়ক অ্যাডভোকেট এনামুল হক, যুগ্ম আহবায়ক জিয়াউল ইসলাম, সদস্য সচিব আলহাজ্ব ফরিদ মামুদ হাসান, নাগরিক ভাবনার যুগ্ম আহবায়ক অ্যাডভোকেট এরশাদ আলী ঈশা, মোতাহের হোসেন বিলৱাহ, চেম্বারের সাবেক পরিচালক মজিবর রহমান দুলাল, আইন কলেজের অধ্যৰ আলী আকবর প্রামানিক, লৰীপুর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলমগীর হোসেন, মেস মালিক সমিতির সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন প্রমুখ।
সভায় রাসিকের প্যানেল মেয়র-৩ ও ৯নং সংরৰিত আসনের কাউন্সিলর নুর্বন্নাহার বেগম, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. এবিএম শরীফ উদ্দিন, সচিব খন্দকার মো. মাহাবুবুর রহমান, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা শাহানা আখতার জাহানসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপসি’ত ছিলেন।

Leave a Reply