বাঘায় নারী ইউপি সদস্য ধর্ষিত ধর্ষক মেম্বারসহ চেয়ারম্যান আটক

০৭/০৪/২০১৭ ১:০৬ পূর্বাহ্ণ০ commentsViews: 40

বাঘা প্রতিনিধি: বাঘায় আপত্তিকর অবস’ায় ইউনিয়ন পরিষদের সংরৰিত আসনের নারী সদস্য ও এক পুরুষ সদস্যকে আটক করা হয়েছে। পরিষদের লাইব্রেরি কৰ থেকে তাদের আটক করে জনতা। আটককৃতরা হলেন সংরৰিত নারী সদস্য ও ৪নং ওয়ার্ড সদস্য আলাল উদ্দীন। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) তোফাজ্জল হোসেন জান্নাতকেও আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায়  এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষিত ওই ইউপি সদস্যকে ডাক্তারি পরীৰার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি ওয়ার্ডে পাঠানো হয়েছে।
পুলিশ জানায়, স’ানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ইউনিয়ন পরিষদের লাইব্রেরির কৰের তালা খুলে তাদের দু জনকে থানায় নিয়ে আসেন। চেয়ারম্যানকে তার বাড়ি থেকে আটক করা হয়। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সংরৰিত ওই নারী সদস্য জানান, তথ্য অফিসের কৰে তিনি বসেছিলেন। আলাল মেম্বার লাইব্রেরির কৰে ডেকে নিয়ে গিয়ে তাকে ধর্ষণ করেছেন। সেই কৰে জান্নাত চেয়ারম্যান যাওয়ার পর চিৎকার দিলে  চেয়ারম্যান চলে যান। স’ানীয় জনতা গিয়ে তাদের দু জনকে আটক করে।
চেয়ারম্যান জান্নাত বলেন, পরিষদে গিয়ে লোকজন দেখেছি। কাজ শেষে বাড়িতে চলে আসি। তবে ওই কৰে কারা ছিলো তা তিনি জানেন না। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবি করেছেন চেয়ারম্যান।
বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ আলী মাহমুদ জানান, সংরৰিত ওই নারী সদস্যের অভিযোগের ভিত্তিতে দু জনের বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগে মামলা হয়। ধর্ষিতা ওই নারী সদস্যকে ডাক্তারি পরীৰার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি-তে প্রেরণ করা হয়েছে। আটক চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য থানা হাজতে রয়েছেন বলে জানান ওসি।

Leave a Reply