মৌলভীবাজারের বড়হাটের জঙ্গি আস্তানায় ৩ জঙ্গির মৃত্যু বিস্ফোরণে

০৩/০৪/২০১৭ ১:০৫ পূর্বাহ্ণ০ commentsViews: 6

এফএনএস: মৌলভীবাজারের বড়হাটের জঙ্গি আস্তানায় নিহত তিন জনের মৃত্যু বিস্ফোরণে হয় বলে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. পলাশের নেতৃত্বে তিন সদস্যের দল গতকাল রোববার দুপুরে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করেন বলে জানান সিভিল সার্জন সত্যকাম চক্রবর্তী। সত্যকাম জানান, তিনজনের মধ্যে দুই পুর্বষের বয়স ৩৮ বছর ও ৪২ বছর এবং এক নারীর বয়স ৩০ বছর। ময়নাতদন্তে তাদের শরীরে গুলির চিহ্ন পাওয়া যায়নি। বোমার বিস্ফোরণে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উলেৱখ করা হয়েছে বলে জানান সত্যকাম। তিনি জানান, ময়নাতদন্ত শেষে মৃতদেহ তিনটি পুলিশকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের হেফাজতে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত দলের অপর দুই সদস্য হলেন মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক সুব্রত কুমার রায় ও আবু ইমরান। ডা. পলাশ বলেন, ওই নারীর পরনে শাড়ি এবং দুই পুর্বষের পরনে টি শার্ট ছিল। তাদের কোমরে বেল্ট দিয়ে বিস্ফোরক বাঁধা ছিল, যেটিতে তারা বিস্ফোরণ ঘটায়। তাদের বুক থেকে শরীরের নিচের অংশ উড়ে গেছে। সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় এক সপ্তাহ আগের আরেক জঙ্গি আস্তানায় অভিযানের সূত্র ধরেই মৌলভীবাজারের এই দুটি বাড়ির সন্ধান পাওয়া যায় বলে পুলিশের ভাষ্য। জেলা পুলিশের সহায়তায় সোয়াট ও কাউন্টার টেররিজম ইউনিট বড়হাটের জঙ্গি আস্তানা ঘেরাও করেছিল গত বুধবার ভোরে। শুক্রবার সকালে বড়হাটের আবুশাহ দাখিল মাদ্রাসা গলির ডুপেৱক্স বাড়িটিতে চূড়ান্ত অভিযান ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ শুর্ব হয়। সিলেট-মৌলভীবাজার সড়কের আধা কিলোমিটারের মধ্যে এই বাড়িতে অভিযান শুর্বর পর থেকে গুলি-বিস্ফোরণের শব্দ আসতে থাকে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে সন্ধ্যায় অভিযানে বিরতি দেওয়া হয়। গত শনিবার দুপুর ১২টায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রায় ৮০ ঘণ্টার অভিযানের সমাপ্তি ঘোষণা করে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনির্বল ইসলাম বড়হাটের জঙ্গি আস্তানায় তিনজনের লাশ পাওয়ার কথা জানান। এর আগে মৌলভীবাজার থানার ওসি অকিল উদ্দিন বলেন, লাশ দেখে মনে হচ্ছে এদের মধ্যে একজন নারী ও দুইজন পুর্বষ। ওই নারীর বয়স ২৫ আর পুর্বষ একজনের বয়স ৩৫ ও অপরজনের বয়স ৪৫ বছর হতে পারে।

Leave a Reply