স্বাধীনতা দিবসকে রাঙিয়ে দিল টাইগাররা

26/03/2017 1:06 am0 commentsViews: 26

স্পোর্টস ডেস্ক: টেস্টে সিরিজ ড্র (১-১) হওয়ার পর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দিকে তুমুল আগ্রহ নিয়ে তাকিয়ে ছিল দুই দল। ডাম্বুলায় ওয়ানডে সিরিজের ১ম ম্যাচে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে ৯০ রানের বিশাল ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। মাশরাফি বাহিনী তিন ম্যাচ সিরিজের ১মটি শেষে ১-০ তে লিড নিল। স্বাধীনতা দিবসে টাইগারদের বিশাল এই জয় ওডিআই সিরিজ জিততে অনুপ্রাণিত করবে দলকে।
গতকাল শনিবার রনগিরি ডাম্বুলা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন লঙ্কান দলপতি উপল থারাঙ্গা। তবে, টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মুর্তজা জানান, টস জিতলে তিনি ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্তই নিতেন। বাংলাদেশ নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ৩২৪ রান। টাইগার ওপেনার তামিমের সেঞ্চুরির সঙ্গে ছিল সাকিব-সাব্বিরের দুর্দান্ত হাফ-সেঞ্চুরির ইনিংস। জবাবে, ৪৫.১ ওভারে সবক’টি উইকেট হারিয়ে ২৩৪ রান তুলতে সৰম হয় লঙ্কানরা।
ব্যাটিংয়ে নেমে সৌম্য সরকারের বিদায়ে দলীয় ২৯ রানে ১ম উইকেটের পতন ঘটে। শুর্বর ধাক্কা কাটিয়ে তামিম-সাব্বির যোগ করেন আরও ৯০ রান। দ্র্বত বিদায় নেন মুশফিক। এরপর শত রানের (১৪৪) জুটি গড়েন তামিম-সাকিব। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৩৩তম অর্ধশতক হাঁকিয়ে সাকিব বিদায় নেন ৭২ রান করে। ৭১ বলে চারটি চার আর একটি ছক্কা হাঁকান সাকিব। দলীয় ২৬৪ রানের মাথায় বাংলাদেশ চতুর্থ উইকেট হারায়। সাকিব-তামিম জুটি থেকে আসে ১৪৪ রান। ওয়ানডে ক্যারিয়ারের অষ্টম শতক হাঁকিয়ে ১২৭ রানে বিদায় নেন তামিম। কুমারার বলে ইনিংসের ৪৮তম ওভারে গুনাথিলাকার হাতে ধরা পড়েন তামিম। ১৪২ বলে ১৫টি চারের পাশাপাশি তামিমের ইনিংসে ছিল একটি ছক্কার মার। দলীয় ২৮৯ রানের মাথায় টাইগারদের পঞ্চম ব্যাটসম্যান হয়ে ফেরেন তামিম। মাহমুদুলৱাহ রিয়াদ ৭ বলে একটি ছক্কায় ১৩ রান করে অপরাজিত থাকেন। শেষ সময়ে ব্যাটে ঝড় তুলেন মোসাদ্দেক হোসেন। ৯ বলে তিনটি চার আর একটি ছক্কায় ২৪ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি।
ফিল্ডিংয়ে নেমে বাংলাদেশের হয়ে বোলিং শুর্ব করেন মাশরাফি। দলীয় শূন্য রানেই প্রথম উইকেট হারায় লঙ্কানরা। মাশরাফি ১ম ওভারে কোনো রান না দিয়েই উইকেট তুলে নেন। দলীয় ১৫ রানের মাথায় দ্বিতীয় উইকেট হারায় লঙ্কানরা। এরপর টিকতে পারেননি ওপেনার উপুল থারাঙ্গা (১৯)। তাসকিনের করা দলীয় ১১তম ওভারের শেষ বলে মাশরাফির তালুবন্দি হয়ে ফেরেন থারাঙ্গা। দলীয় ৩১ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। এরপর জুটি গড়ে ৫৬ রান যোগ করেন আসেলা গুনারত্নে এবং চান্দিমাল। দলীয় ৮৭ রানের মাথায় চতুর্থ উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। এরপর আবারো মিরাজের আঘাত। বিদায় নেন দিনেশ চান্দিমাল (৫৯)। দলীয় ১৫৩ রানের মাথায় বিদায় নেন মিলিন্দা সিরিবর্ধানে। দলীয় ২০৮ রানের মাথায় অষ্টম উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। নবম ব্যাটসম্যান হয়ে ফেরেন রান আউট হওয়া সান্দাকান (৩)। থিসারা পেরেরা ৩৫ বলে ৫৫ রান করে মোস্তাফিজের শিকারে শেষ ব্যাটসম্যান হয়ে বিদায় নেন।
মোস্তাফিজ তিনটি উইকেট দখল করেন। এছাড়া, মাশরাফি এবং মেহেদি মিরাজ দুটি করে উইকেট লাভ করেন। তাসকিন ও সাকিব একটি করে উইকেট তুলে নেন। ম্যাচ সেরা হন তামিম।

Leave a Reply