সাদাছাই দুশ্চিন্তায় ফেলেছে আমচাষিদের

১৪/০৩/২০১৭ ১:০৪ পূর্বাহ্ণ০ commentsViews: 19

গাছে মুকুলের সমারোহ আমচাষিদের বুকে বেশ আশা জাগিয়েছিল। আবহাওয়াও ছিল ভাল। হঠাৎ বৃষ্টি ও মেঘলা-কুয়াশাচ্ছন্ন অবস’া পরিসি’তি যেন পাল্টে দিল। বৃষ্টির পরপরই আমের গুটিতে সাদা ছাইয়ের আবির্ভাব, পরে কালো হয়ে যাওয়া। মুকুলেরও একই দশা। সাদাছাই বলা হলেও আসলে তা ছাই নয়, ছত্রাক জাতীয় মারাত্মক রোগ। নাম পাউডারি মিলডিউ। যা আমচাষীদের ঘুম কেড়ে নিয়েছে। শুর্বতেই সামাল দিতে না পারলে মাথায় হাত উঠবে নির্ঘাৎ।
৫-৬ দিন আগ থেকেই রাজশাহী শহর ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের মুকুলে ছেয়ে যাওয়া আমগাছগুলিতে এ রোগের প্রাদুর্ভাব ঘটেছে। প্রথমে গুটির গোড়া ও মুকুলে সাদা রঙ ধরে। তারপর কালো হয়ে যায়। দিশেহারা আমচাষি দোকান থেকে ওষুধ কিনে এনে স্প্রে করছে। কাজ হচ্ছে না বলেই জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। বিপদ ছড়িয়ে পড়ছে আশপাশের গাছে, আমবাগানে।
কৃষি কর্মকর্তাদের মতে এই সময়ের হাল্কা বৃষ্টি, মেঘলা বা কুয়াশাচ্ছন্ন আকাশ এ রোগের জীবাণু ছড়াতে সহায়তা করে। সাম্প্রতিক বৃষ্টির পর ঠিক সে রকম আবহাওয়াই আম চাষিদের স্বপ্ন ভাঙার আশঙ্কায় ফেলেছে। নগরীর পার্শ্ববর্তী রায়পাড়া, গোদাগাড়ী, বাঘা উপজেলায় রোগটি ছড়িয়ে পড়লেও স’ানীয় কৃষি কর্মকর্তাদের কানে বাতাস লাগেনি। এ সময়েই রোগটির দেখা মিলতে পারে জানা থাকলেও তারা চোখ বন্ধ করে থেকেছেন। তাই রোগটি যে ছড়িয়ে পড়ছে সেটি তাদের জানা না থাকার কথা বলতে বাধেনি। খোঁজ নিয়ে দেখার কথা বলেছেন। আরও জানিয়েছেন, আমচাষিরা অফিসে যোগাযোগ করলে তাদের সাহায্য করা হবে। এরপর অবশ্য কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক অধস্তন কর্মকর্তাদের রোগটি দেখা দিলে সেটি যেন ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে না পড়ে তার জন্য বিশেষ নির্দেশনা দেবার কথাও জানিয়েছেন। অফিসে বসে মাঠ পর্যায়ের কৃষি কর্মকর্তাদের এমন তাৎপরতা চাষিদের কী উপকারে আসে সেটা দেখার বিষয়।
এবার রাজশাহী জেলায় ১৬ হাজার ৮০০ হেক্টর জমির আমবাগনে ১ লাখ ৭০ হাজার মেট্রিক টন আম উৎপাদনের লৰ্যমাত্রা ধরার কথা জানা গেছে। এ পর্যন্ত প্রায় ৬০ ভাগ গাছের মুকুল গুটিতে পরিণত হয়েছে, বাদবাকী ৪০ ভাগ গাছে এখনও মুকুল আছে। পাউডারি মিলডিউর ছড়িয়ে পড়া নিয়ন্ত্রণে জর্বরিভিত্তিতে পদৰেপ নেয়া না হলে আমচাষের লৰ্যমাত্রা অর্জন যে ভেস্তে যেতে পারে তা বলার অপেৰা রাখে না। বিশেষ করে কৃষি কর্মকর্তাদের চেয়ারে বসে দায়িত্ব পালনের অবস’া দেখে এমন আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

Leave a Reply