পদ্মাসেতু হয়ে গেলে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হতো ৮ শতাংশ

15/02/2017 1:06 am0 commentsViews: 6

সোনালী ডেস্ক: পদ্মাসেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের যে অভিযোগ ছিল তা না থাকলে এতোদিন পদ্মাসেতু হয়ে যেতো। এবং এ সেতু হয়ে গেলে জিডিপি’র (সামষ্টিক অভ্যনৱরীণ উৎপাদন) প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ হতো বলে মনৱব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রম্নয়ারি) রাজধানীর শেরে বাংলানগর এনইসি সম্মেলন কৰে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভার শুরম্নতেই এসব কথা বলেন তিনি। দেশের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ বিশ্ব উন্নয়নের রোল মডেল। সম্মানজনক অবস’ানে আমরা বাংলাদেশকে নিয়ে এসেছি। আমাদের বিরম্নদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে বা মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে আমাদের কাজের গতিকে ব্যহত করতে যারা তৎপর ছিলো, সেটাও আজ মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে।
এটি আনৱর্জাতিকভাবে প্রমাণিত’। ‘আমি বলেছি, পদ্মাসেতুর বিষয়ে বিশ্বব্যাংক আমাদের বিরম্নদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। তাদের মিথ্যা অভিযোগে আমাদের একজন সচিবকে (সাবেক সেতু সচিব ও বর্তমান শিল্প মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোশারফ হোসেন ভূইয়া) জেল খাটতে হয়েছে। এর চেয়ে লজ্জা আর কি হতে পারে! একটা মানুষের জীবনে কতোটা আঘাত আসলে এটা হতে পারে। তার (সচিব) জীবনে মূল্যবান সময় জেলে কেটেছে। আমরা তার কাছ থেকে একটি বছর আরও ভালো সার্ভিস পেতে পারতাম। দেশকে তিনি আরও কিছু দিতে পারতেন। সেটি থেকে সচিব বঞ্চিত হয়েছেন’।
প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘তাকে বঞ্চিত করলেও এমন ধরনের ঘটনা আর যাতে না ঘটে, সবাইকে সে বিষয়ে সতর্ক হতে হবে। সবাইকে চারদিকে নজর রাখতে হবে। দেশের উন্নয়নের কথা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নিজের ভাগ্য গড়তে আমরা এখানে আসিনি, দেশের মানুষের ভাগ্য গড়তেই এসেছি। দেশের মানুষের ভাগ্য গড়াই আমাদের সরকারের মূল লৰ্য’।
এক ব্যক্তির কথা উলেস্নখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পদ্মাসেতু নিয়ে একটা মিথ্যা অহেতুক অপবাদ দেওয়া হয়েছে। আমি মনে করি, এর পিছনে অন্য কোনো কারণ আছে। একজন ব্যক্তির স্বার্থে আঘাত লাগলো বলেই সেই ব্যক্তি দেশের একটা মুল্যবান প্রজেক্ট বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলেন’। ‘পদ্মাসেতু হয়ে গেলে দেশ আরও এগিয়ে যেতো। যার ফলে আমাদের দৰিণাঞ্চলের মানুষের সার্বিক উন্নতি হতো। জিডিপিতে (সামষ্টিক অভ্যনৱরীণ উৎপাদন) এক শতাংশের ওপরে যোগ হতো’।
পদ্মাসেতু ও জিডিপি প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন আমাদের জিডিপি’র প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ১১ শতাংশ। সময় মতো পদ্মাসেতু শুরম্ন করতে পারলে এতোদিন সম্পূর্ণ হয়ে যেতো। এতোদিন পদ্মাসেতু হয়ে গেলে আমরা ৮ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি দেখতে পারতাম। এ সম্ভাবনা ব্যহত করা হয়েছে। যাই হোক চড়াই- উৎরাই পার হয়ে আমাদের অগ্রযাত্রা এগিয়ে নিতে হবে। সকল কিছু মোকাবেলা করে আমরা এগিয়ে যাবো’। পদ্মাসেতুর দুর্নীতির অভিযোগে সাবেক সেতু সচিব ও বর্তমান শিল্প মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোশারফ হোসেন ভূইয়াকে কারাগারে যেতে হয়েছিল।

Leave a Reply


shared on wplocker.com