ইরানে হামলায় যুক্তরাষ্ট্রে অন্ধকার / নামবে : তেহরান

11/02/2017 1:04 am0 commentsViews: 16

এফএনএস আনৱর্জাতিক ডেস্ক : ইরানে হামলা করলে যুক্তরাষ্ট্রে অন্ধকার নামবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে তেহরান। বিপস্নব বার্ষিকীতে এই হুঁশিয়ারি দেয় তেহরান। সমপ্রতি এক অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুলস্নাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছিলেন, আসন্ন বিপস্নব বার্ষিকীতে ইরানকে দেওয়া মার্কিন হুমকির জবাব দেওয়া হবে।
এর ধারাবাহিকতায় বিপস্নব বার্ষিকী উপলক্ষে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুলস্নাহ আলী খামেনির প্রভাবশালী উপদেষ্টা আলি আকবর ভেলায়াতি এ হুঁশিয়ারি দেন।
ইরানের সামরিক বাহিনীর কমান্ডারদের এক অনুষ্ঠানে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা বলেছিলেন, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প বলছেন, আমাকে ভয় কর। কিন’ না! ইরানের জনগণ তার এ বক্তব্যের জবাব দেবে ২২ বাহমান বিপস্নব বার্ষিকীর দিন। হুমকির জবাবে ইরানের জনগণ কী ধরনের অবস’ান গ্রহণ করে সেদিন তারা তা দেখিয়ে দেবে।”
কয়েকদিন আগে এক টুইটার বার্তায় ট্রাম্প বলেছেন, “আগুন নিয়ে খেলছে ইরান। প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা তাদের প্রতি কতটা দয়ালু ছিলেন তারা তা মোটেই স্বীকার করে না; কিন’ আমি তা করব না।” এর প্রেক্ষিতে সর্বোচ্চ নেতা সামরিক বাহিনীর অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, “ট্রাম্প বলেছেন ইরানের জনগণের উচিত সাবেক প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রতি কৃতজ্ঞ হওয়া। কিন’ কেন? আমাদের কী উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের প্রতি কৃতজ্ঞ হতে হবে? আমরা কী ইরাক ও সিরিয়ার সহিংসতার আগুনের প্রতি কৃতজ্ঞ হব? ২০০৯ সালে ইরানে যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করিয়েছিলেন ওবামা; আমরা কী তার প্রতি অন্ধ সমর্থন দেব?” আলজাজিরাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইরানের ওপর সামরিক হামলা চালানো হলে ট্রাম্প প্রশাসনের জন্য অন্ধকার দিন নেমে আসবে বলেও সতর্ক করেছেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা। আল জাজিরাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আলি আকবর বলেন, ‘ইরানের বিরম্নদ্ধে সামরিক হুমকি দেওয়ার সাহস যেন ওয়াশিংটন না করে।
তিনি বলেন, ‘আমেরিকানরা খুব ভালো করে জানে যে ইরান ও তার ভূরাজনৈতিক মিত্র দেশগুলো খুব কঠোরভাবে হামলার জবাব দিতে পারে।’ তিনি যোগ করেন, ‘আমেরিকার জন্য তা অন্ধকার দিন ডেকে নিয়ে আসবে।’
উলেস্নখ্য, ফারসি ২২ বাহমান হচ্ছে ইরানের ইসলামি বিপস্নবের বার্ষিকী। ১৯৭৯ সালের এ দিনে ইরানের বিপস্নব চূড়ানৱভাবে সফল হয়। প্রতিবছর এই দিনটিতে ইরানের জনগণ সারাদেশে বিপস্নবের প্রতি সমর্থন জানিয়ে আনন্দ মিছিল ও সমাবেশ করে।

Leave a Reply


shared on wplocker.com