সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জে গৃহবধূকে গণধর্ষণ মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদ-াদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সাথে ১ লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদ- দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরের দিকে সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ফজলে খোদা মো. নাজির আসামিদের উপসি’তিতে এ দ-াদেশ দেন। সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার কোবদাসপাড়া মহলৱ্লার আব্দুল মমিন (৪০) ও হাফিজুল ইসলাম ওরফে বাবু (৪২)। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাড. আব্দুল হামিদ লাভলু এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মামলার বরাদ দিয়ে তিনি আরও জানান, গত বছরের ১১ অক্টোবর ভোর রাতে শহরের রানীগ্রাম মহলৱ্লার জনৈক গৃহবধূ স্বামীর সাথে ঝগড়া করে বোনের বাড়ির উদ্দেশে রওনা  দেন। তিনি রাণীগ্রাম ক্লোজার এলাকায় রিকশার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় কোবদাসপাড়া মহলৱ্লার মমিন, হাফিজুল ইসলাম বাবু, সাগর, রাসেল ও ফিরোজ তাকে একা পেয়ে জোরপূর্বক উঠিয়ে নিয়ে যায়। তাকে কোবদাসপাড়া মহলৱ্লায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকল্পের ১নং গেইটের ৪ শ গজ দূরের স্তূপীকৃত সিসি বৱ্লকের আড়ালে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। প্রায় দুই ঘণ্টা পর ধর্ষিতাকে রিকশায় তুলে দিয়ে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে ৫ জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ ৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট জমা দেন। শুনানি শেষে বিচারক মমিন ও হাফিজুলকে যাবজ্জীবন কারাদ-াদেশ দেন। বাকি ৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দেয়া হয়।