স্টাফ রিপোর্টার: গতকাল শুক্রবার ছিল কার্তিক মাসের ৪ তারিখ। ধীর পায়ে এগিয়ে আসছে শীত। হেমন্তের শুর্বতেই গতকাল ছিল এই মৌসুমের সবচেয়ে ঘন কুয়াশা। এরফলে বাড়ছে শীত জনিত অসুখ।
রাজশাহীতে গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত কুয়াশার কারণে সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। সকালে মহাসড়কে যানবাহন গুলোকে হেড লাইট জ্বালিয়ে সাবধানে চলাচল করতে দেখা গেছে। এসময় দিনের বেলা গরম থাকলেও রাতে পড়ছে শীত। হটাৎ শীতের আগমনে মানুষজন আক্রান্ত হচ্ছেন শীতজনিত অসুখে। হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসা নিতে বয়স্ক ও শিশুদের ভিড় দেখা যাচ্ছে বেশি। চিকিৎসকরা এসময় একটু সাবধানে চলাচল করতে পরামর্শ দিচ্ছেন। শীতের আগমনে দোকানিরা গরম কাপড়ের পশরা সাজিয়ে বসতে শুর্ব করেছেন। ক্রেতারাও ভিড় করছেন গরম কাপড়ের কেনাকাটায়।
রাজশাহী আবহাওয়া অফিস জানায়, গতকাল রাজশাহীতে তাপমাত্রা ছিল সর্বনিম্ন ২১ দশমিক ৬ এবং সর্বোচ্চ ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসের আদ্রতা ছিল সকাল ৬ টায় ১০০ পারসেন্ট এবং সন্ধ্যা ৬ টায় ৪৬ পারসেন্ট।