স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকার পৰে নিরসলভাবে পরিশ্রম ও বিজয়ী করায় মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের আনুষ্ঠানিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন নবনির্বাচিত মেয়র এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন।
রোববার দুপুরে মহানগরীর উপশহরস’ নিজ বাসভবনের পাশে প্যান্ডেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।
অনুষ্ঠানে মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন বলেন, আপনারা সবাই নিরসলভাবে দিনরাত পরিশ্রম করে আমার পৰে কাজ করেছেন। নির্বাচনে আমাকে বিজয়ী করেছেন, এজন্য আপনাদের সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি। একইসঙ্গে সবার প্রতি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করছি।
মেয়র এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন আরো বলেন, ২০১৩ সালে আমি রাজশাহীকে যে অবস’ায় রেখে এসেছিলাম, সেটি এখন সেই উন্নত, ঝকঝকে-তকতকে, পরিস্কার ও পরিচ্ছন্ন নগরী নেই। গত মেয়াদের মেয়রের অযোগ্যতা, মেধাহীনতার কারণে সিটি কর্পোরেশনের খারাপ অবস’া। সেই অবস’া থেকে উত্তোরণ করে সবাই মিলে একসাথে উন্নত রাজশাহী গড়ে তুলতে চাই। এজন্য সবার সহযোগিতা ও দোয়া চাই।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাংসদ ওমর ফার্বক চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক সাংসদ তাজুল ইসলাম ফার্বক, মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মোজাফফর হোসেন, নগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেণী, মহানগর সহ-সভাপতি অধ্যাপক র্বহুল আমিন প্রামাণিক, জেলা সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, মহানগর সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার প্রমুখ। মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাইমুল হুদা রানা সঞ্চালনা করেন।
অনুষ্ঠানে মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ, থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাবেকলীগ, ছাত্রলীগসহ অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। পরে নেতৃবৃন্দ মধ্যহ্নভোজে অংশ নেন।
প্রসঙ্গত, গত ৩০ জুলাই রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হন এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন। আগামী ৫ অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব বুঝে নিবেন মেয়র লিটন।